আফগান সেনা ঘাঁটিতে তালেবান হামলা, নিহত শতাধিক

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের বাইরে দেশটির সেনাবাহিনীর একটি ঘাঁটি ও পুলিশের একটি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে জঙ্গিগোষ্ঠী তালেবানের হামলায় নিরাপত্তাবাহিনীর শতাধিক সদস্যের প্রাণহানি ঘটেছে। দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ এক কর্মকর্তা বলেছেন, সশস্ত্র তালেবান জঙ্গিরা সোমবার এই হামলা চালিয়েছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ওই কর্মকর্তা বার্তাসংস্থা রয়টার্সকে বলেন, আমাদের কাছে তথ্য আছে, সামরিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে বিস্ফোরণে ১২৬ জন মারা গেছেন। ওয়ার্দাক প্রদেশের ময়দান শহরের সেনা ঘাঁটিতে এই হামলা হয়েছে।

ময়দান শহরটি রাজধানী কাবুল থেকে ৪৪ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে গজনী-কাবুল মহাসড়কের পাশে অবস্থিত। প্রাদেশিক এক কর্মকর্তাও রয়টার্সকে বলেছেন, নিহতের সংখ্যা শতাধিক ছাড়িয়ে গেছে।

আরও পড়ুন : পালিয়ে বিয়ে করতে চাইলে সহায়তা দেবে পুলিশ! 

তবে দেশটির সরকারি এক মুখপাত্র এ ব্যাপারে মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। এর আগে, সরকারি এক বিবৃতিতে জানানো হয়, সামরিক ঘাঁটিতে বিস্ফোরণে ১২ জনের প্রাণহানি ঘটেছে।

ওই এলাকার স্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান সালেম আসঘারখাইল বলেন, আহতদের মধ্যে কিছু লোককে প্রাদেশিক হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। এছাড়া গুরুতর আহতদের উদ্ধারের পর চিকিৎসার জন্য রাজধানী কাবুলে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন : মেয়েদের ভায়াগ্রা প্রকাশ্যে বিক্রির অনুমোদন দিল মিসর 

সমন্বিত এ গাড়িবোমা হামলার দায় স্বীকার করেছে তালেবান। দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের উপ-মুখপাত্র নাসরাত রাহিমি বলেন, ময়দান শহরের সামরিক ঘাঁটির প্রবেশ পথে গাড়ির বিস্ফোরণ ঘটায় আত্মঘাতী তালেবান জঙ্গিরা। পরে তালেবানের সশস্ত্র জঙ্গিরা ভেতরে প্রবেশ করে।

অতীতে একই ধরনের কৌশল ব্যবহার করে আফগান এই জঙ্গিগোষ্ঠীর সদস্যরা দেশটির নিরাপত্তাবাহিনীর ওপর অনেক হামলা চালিয়েছে। পার্শ্ববর্তী লোগার প্রদেশে আফগান ৮ নিরাপত্তাবাহিনীর সদস্যকে হত্যার একদিন পর ময়দানে প্রাণঘাতী এই হামলা চালাল তালেবান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *