স্টাফ রিপোর্টার :
দৈনিক ফেনীর সময় ও সাপ্তাহিক আলোকিত ফেনীর আয়োজনে ২০১৮ সালের ‘আলোকিত ফেনী বৃত্তি পরীক্ষা’ শুক্রবার ফেনী, দাগনভূঞা ও সোনাগাজীর ৫ কেন্দ্রে উৎসবমুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে। ফেনী সরকারী কলেজ, ফেনী শিশু নিকেতন কালেক্টরেট স্কুল, ফেনী সেন্ট্রাল হাই স্কুল, সোনাগাজীর বখতারমুন্সী শেখ শহীদুল ইসলাম ডিগ্রী কলেজ ও দাগনভূঞার সিলোনীয়া হাই স্কুল কেন্দ্রে ৯ম বারের মত এ বৃত্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। জেলার ৬ উপজেলার আড়াইশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রায় ৪ সহস্রাধিক শিশু-কিশোর মেধার লড়াইয়ে অংশ নেয়। এ মহতি উদ্যোগের সহযোগিতায় রয়েছে আলোকিত ফেনী ফাউন্ডেশন।
ফেনী সরকারি কলেজ কেন্দ্রে ফেনী সরকারি কলেজের প্রাক্তণ অধ্যক্ষ ও দৈনিক ফেনীর সময় লেখক পাঠক ফোরামের প্রফেসর উৎপল কান্তি বৈদ্য ও মডেল থানার ওসি মো: আবুল কালাম আজাদ, ফেনী সেন্ট্রাল হাই স্কুল কেন্দ্রে বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও ফেনী প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি নুরুল করিম মজুমদার, বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদ সদস্য ও পৌরসভার প্যানেল মেয়র আশ্রাফুল আলম গীটার, শিশু নিকেতন কেন্দ্রে ১০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাহতাব উদ্দিন মুন্না, সিলোনীয়া হাই স্কুল কেন্দ্রে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদ সভাপতি মামুনুর রশিদ মিলন, ইয়ুথ জার্নালিস্ট ফোরামের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও বাসসের সিনিয়র সাব-এডিটর তানভীর আলাদীন, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কামাল উদ্দিন, দাগনভূঞা প্রেস ক্লাব সভাপতি সৈয়দ ইয়াছিন সুমন ও সাধারণ সম্পাদক ইমাম হাছান কচি, সাবেক সভাপতি এম এ তাহের পন্ডিত পরীক্ষা পরিদর্শন করেন।
কোমলমতি মেধাবী শিক্ষার্থীদের প্রতিযোগী মনোভাব গড়ে তোলা ও অধ্যবসায়ের চর্চার প্রয়াসেই এ উদ্যোগ এমনটি জানিয়েছেন বৃত্তি পরিচালনা কমিটির সভাপতি এবং দৈনিক ফেনীর সময় ও সাপ্তাহিক আলোকিত ফেনী সম্পাদক মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন। এসময় সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে পরীক্ষা অনুষ্ঠানের জন্য সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। তিনি জানিয়েছেন, অত্যন্ত গুরুত্ব ও নিরপেক্ষতার সঙ্গে মূল্যায়ন শেষে যথাসম্ভব দ্রুত বৃত্তির ফলাফল ঘোষনা করা হবে। প্রথম থেকে ৮ম শ্রেনীর ৩শ ৬০ শিক্ষার্থীকে বৃত্তি প্রদান করা হবে।
বৃত্তি পরিচালনা কমিটির প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আরিফ আজম জানান, জেলার ৬ উপজেলায় প্রায় আড়াইশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রথম থেকে ৮ম শ্রেনীর ৪ সহস্রাধিক শিক্ষার্থী প্রতিযোগিতামূলক এ পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে।
প্রসঙ্গত; ২০১০ সাল থেকে আলোকিত ফেনী বৃত্তি পরীক্ষা ৫ম শ্রেনী পর্যন্ত প্রতি বছর সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। শিক্ষক, অভিভাবকদের অনুরোধে ২০১৭ সাল থেকে ৬ষ্ঠ থেকে ৮ম শ্রেনীর শিক্ষার্থীদেরও অংশগ্রহনের সুযোগ করা হয়েছে।