সদর প্রতিনিধি : ফেনী শহরতলীর ধর্মপুর ইউনিয়নের ধর্মপুর থেকে মঠবাড়িয়া ব্রিকস্ এর সামনে সোমবার রাতে ডাকাতির চেষ্টায় ৬ ডাকাতকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে তাদের ডাকাতির প্রস্তুতি মামলায় আদালতের মাধ্যমে জেল-হাজতে প্রেরণ করা হয়।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্র জানায়, একটি চক্র দীর্ঘদিন ধরে মানুষের বাড়ি ও গাড়িতে ডাকাতি করে আসছে। সোমবার রাতে দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে ৮-১০ জন দূর্বৃত্ত মঠবাড়িয়া ব্রিকস্ সংলগ্ন কাসেম মিয়ার বাড়িতে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিল। খবর পেয়ে স্থানীয় ইউপি মেম্বার নজরুল ইসলাম সহ এলাকাবাসী ডাকাতদেরকে ধাওয়া করে। এলকাবাসীর সহযোগিতায় পুলিশ শর্শদি ইউনিয়নের আবুপুর গ্রামের বোরহান উদ্দিনের ছেলে মো: হুমায়ন কবির (১৮), একই গ্রামের রুহুল আমিনের ছেলে মো: ইস্রাফিল (১৮), আবদুল লতিফের ছেলে মো: সুলতান আহাম্মদ (২৩), তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে আমির হোসেন রাকিব (১৮), শামছুল হকের ছেলে ইমদাদুল হক শাকিল (১৯) ও চৌদ্দগ্রাম উপজেলার মো: মজিবুল হকের ছেলে আজাদ হোসেন (২৫) কে গ্রেফতার করা হয়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে অপর ৪ জন পালিয়ে যায়। তাদের কাছ থেকে ২টি ছোরা, ১টি দা ও ১টি রড উদ্ধার করা হয়।

এসআই নাছির উদ্দিন জানান, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহসড়কে ফেনী বাইপাস অংশের ফতেহপুর রেলওয়ে ওভারপাস নির্মাণ কাজকে ঘিরে সৃষ্ট যানজটে আটকে পড়া গাড়িগুলো ডাকাতি করতে জড়ো হয়। তারা ডাকাতি ছাড়াও বিভিন্ন সময় মানুষের টাকা ও মোবাইলফোন ছিনতাই করে।

ফেনী মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মো: শহীদুল ইসলাম তাদেরকে গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পুলিশ বাদী হয়ে ডাকাতি প্রস্তুতি মামলা দায়ের করে।