শহর প্রতিনিধি : ফেনী শহরের পশ্চিম রামপুরে ঢাকাগামী সৌদিয়া পরিবহন থেকে সাড়ে ৬ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে র‌্যাপিড এ্যাকশান ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-৭)।
সূত্র জানায়, গতকাল বুধবার ভোর ৫টার দিকে র‌্যাবের একটি দল পশ্চিম রামপুর এলাকায় বিশেষ চেকপোস্ট স্থাপন করে গাড়ী তল্লাশী করতে থাকে। এসময় ঢাকাগামী সৌদিয়া পরিবহন (রেজি: নং- চট্ট মেট্টো- ব- ১১-১০৫৯) গতিবিধি সন্দেহজনক হলে র‌্যাব সদস্যরা থামানোর সংকেত দেয়। গাড়ীটি না থামিয়ে চালক দ্রুতগতিতে চেক পোষ্ট অতিক্রম করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। পেছন থেকে ধাওয়া দিয়ে আটক করা হয়। বাস তল্লাশীর একপর্যায়ে গাড়িতে থাকা ৬ জন ব্যক্তির আচরণ সন্দেহজনক মনে হলে র‌্যাব সদস্যরা কুমিল্লার দাউদকান্দি থানার গয়েসপুর গ্রামের সুরুজ মিয়ার ছেলে খলিলুর রহমান (৫৭), কক্সবাজার জেলার চকরিয়া থানার নিজ পানখালী গ্রামের মৃত কবির আহম্মদের ছেলে মো: রফিক (৪৬), চট্টগ্রামের সাতকানিয়া থানার চরকাগুলিয়া গ্রামের মোস্তাফিজের ছেলে মো: করিম (২৭), কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থানার ফরাজী বাড়ীর মৃত নুর হোসেনের ছেলে মো: জাকির হোসেন মহসিন (৪৮), কক্সবাজার সদর থানার মহাজরপাড়া গ্রামের আবু মিয়ার ছেলে মো: পারভেজ উদ্দিন (৩০) ও রামু থানার খুনিয়া পালং ৩নং ওয়ার্ডের নবী হোসেনের স্ত্রী মর্জিনা বেগম (৪৫) আটক করা হয়। তাদের দেহ তল্লাশী করে ৬ হাজার ৮শ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়। তাদের দেয়া তথ্যমতে বাসের সিটের নিচে লুকানো অবস্থায় আরো ৩২ হাজার ৩শ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।
ফেনীস্থ র‌্যাব-৭ এর স্কোয়াড্রন লিডার শাফায়াত জামিল ফাহিম ইয়াবা উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, উদ্ধারকৃত ইয়াবা মূল্য ১ কোটি ৯৫ লাখ ৫০ হাজার টাকা। এছাড়া ৮০ লাখ টাকা মূল্যের সৌদিয়া পরিবহনের বাসটিও জব্দ করা হয়।