স্টাফ রিপোর্টার : ফেনী সদর উপজেলার ফাজিলপুর ও ফরহাদনগরে গতকাল মঙ্গলবার দুটি লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তাদের পরিচয় মিলেনি।

পুলিশ সূত্র জানায়, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ফেনী বাইপাস অংশের ফাজিলপুরের রাজনগর এলাকার মুহুরী ব্রীজের উত্তর পশ্চিম পাশে নদী থেকে একটি লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ দুপুর আড়াইটার দিকে মুহুরী নদী থেকে  অজ্ঞত লাশটি উদ্ধার করে ফেনী আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। অজ্ঞতনামা যুবকটির আনুমানিক বয়স ৩০ বছর।

একদিন বিকালে সদর উপজেলার ফরহাদ নগর ইউনিয়নের চরকালিদাস গ্রাম সংলগ্ন কালিদাস পাহালিয়া নদী থেকে আরেকটি লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ খবর পেয়ে লাশটি পাহালিয়া নদী থেকে    উদ্ধার করে ফেনী আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। অজ্ঞতনামা যুবকটির আনুমানিক বয়স ৩২ বছর।

ধারণা করা হচ্ছে, লাশ গুম করতে দুস্কৃতিকারীরা হত্যা করে নদীতে ফেলে দেয়। বোগদাদিয়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই মো: মাঈন উদ্দিন ভূঞা লাশ দুটি উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, লাশগুলো আনুমানিক দুই থেকে তিন দিন আগে নদীতে ফেলা হয়েছে। লাশের সুরতহাল রির্পোট তৈরি করা হয়েছে।

ফরহাদনগর ইউপি চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন টিপু জানান, চরকালিদাস গ্রামে নদী থেকে একটি অজ্ঞাত লাশ উদ্ধার হয়েছে বলে তিনি শুনেছেন।

ফেনী মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মো: শহীদুল ইসলাম জানান, লাশ দুটির এখনো কোন পরিচয় পাওয়া যায়নি। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর সঠিক কারন জানা যাবে। স্বজনরা লাশ সনাক্ত না করলে দাফনের জন্য আঞ্জুমানে মফিদুল ইসলামের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

প্রসঙ্গত, এর আগে ২০ সেপ্টেম্বর ফাজিলপুরের রাজনগর এলাকার মুহুরী ব্রীজের উত্তর পশ্চিম পাশে নদী থেকে আরো একটি অজ্ঞাত লাশ উদ্ধার করে বোগদাদিয়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র।