অনলাইন ডেস্ক নিউজ ফোর-জি লাইসেন্সিং গাইডলাইন এবং তরঙ্গ নিলামের বিষয়ে বিটিআরসির বিজ্ঞপ্তি স্থগিত করে হাইকোর্টের দেয়া আদেশ স্থগিত রেখেছে সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগ। এর ফলে ফোর-জি লাইসেন্সিং এর নিলাম কার্যক্রমে আর বাধা নেই বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা। দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহহাব মিঞার নেতৃত্বে পাঁচ বিচারপতির আপিল বিভাগ বেঞ্চ আজ এ আদেশ দেয়। আদালতে বিটিআরসির পক্ষে শুনানি করেন এটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। সঙ্গে ছিলেন ব্যারিস্টার খন্দকার রেজা-ই-রাকিব। মামলার বাদী বাংলা-লায়ন কমিউনিকেশন্স লিমিটেডের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদ। সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী রমজান আলী সিকদার। বৃহস্পতিবার সকালে ফোর-জি লাইসেন্সিং গাইডলাইন এবং তরঙ্গ নিলামের জন্য বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) আবেদন আহ্বান করে জারি করা বিজ্ঞপ্তি স্থগিত করেন হাইকোর্ট। বাংলা-লায়ন কমিউনিকেশন্সের পক্ষে রিট আবেদন করা হলে তার শুনানি নিয়ে হাইকোর্ট ওই আদেশ দেয়। হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত চেয়ে ওইদিন দুপুরেই বিটিআরসি আবেদন করে। ওই আবেদনের প্রেক্ষিতে আপিল বিভাগের চেম্বার কোর্ট বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করে আজ রোববার এ বিষয়ে শুনানির জন্য আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে প্রেরণ করে। রবিবার ব্যারিস্টার খন্দকার রেজা-ই-রাকিব বলেন, হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করেছিলেন চেম্বার আদালত। আজ রোববার এ স্থগিতাদেশ বহাল রেখে হাইকোর্টে রুল নিষ্পত্তি করতে আদেশ দিয়েছে আপিল বিভাগ। ফলে ফোর জি লাইসেন্সিং নিয়ে বিটিআরসির কার্যক্রমে আর কোনো বাধা নেই। ফোর-জি মোবাইল ফোন সেবার লাইসেন্স এবং তরঙ্গ নিলামের জন্য আবেদন আহ্বান করে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা-বিটিআরসির করা বিজ্ঞপ্তি স্থগিত করে বিচারপতি নাইমা হায়দার ও বিচারপতি জাফর আহমদের হাইকোর্ট বেঞ্চ বৃহস্পতিবার আদেশ দেয়। এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে আদালত ওইদিন রুলও জারি করে। বিটিআরসির বিজ্ঞপ্তি ২০০৮ সালের ব্রডব্যান্ড গাইডলাইন্সের সঙ্গে সাংঘর্ষিক- এ দাবি করে বাংলা লায়ন কমিউনিকেশন্স লিমিটেডের পক্ষে আদালতে এ রিট আবেদন করা হয়। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের চূড়ান্ত অনুমোদন পাওয়ার পর টেলিযোগাযোগের ফোর-জি সেবার লাইসেন্স ও তরঙ্গ নিলামের নীতিমালা গত ২৯ নভেম্বর হাতে পায় টেলিযোগাযোগ বিভাগ। এরপর ৪ ডিসেম্বর বিটিআরসি ফোর-জি লাইসেন্সের আবেদন চেয়ে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। সেখানে তরঙ্গ নিলামের জন্য ১৩ ফেব্রুয়ারি দিন রেখে ১৪ জানুয়ারির মধ্যে আগ্রহীদের ফোর-জি সেবার লাইসেন্সের আবেদন জমা দিতে বলা হয়

antalya escort bursa escort adana escort mersin escort mugla escort samsun escort konya escort