অথার নাম

স্টাফ রিপোর্টার : ফেনী শহরের সহদেবপুরে গতকাল সোমবার দুপুরে নির্মানাধীন একটি পাঁচতলা ভবনের ছাদের দেওয়ালের অংশ ভেঙ্গে একজন নির্মান শ্রমিক ও ভবনের নীচের রাস্তায় থাকা অপর এক রিক্সা চালকের ওপর পড়ে দুইজনই  মারা গেছেন।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, ফেনী শহরের দক্ষিন সহদেবপুর মজুমদার বাড়ি এলাকায় জনৈক অশোক চন্দ্র তার তিন তলা বাড়ির উর্ধমূখী সম্প্রসারণ করে পাঁচ তলার ছাদও করেন। ছাদের ওপর দেওয়ালও করেন। ছাদের দেওয়ালের সাথে বেশ কিছু খোয়া রাখা হয়। গতকাল সোমবার দুপুরে নির্মান শ্রমিক নিমাই চন্দ্র ছাদের ওপর এক পাশে কাজ করার জন্য ওই খোয়া সরাতে গেলে হঠাৎ ছাদের দেওয়ালের একাংশ ভেঙ্গে তিনিসহ নীচে পড়ে যান। এসময় ওই ভবনের পাশে নীচের সড়কে ছিল রিক্সা চালক মো. এমদাদুল। নির্মান শ্রমিক পাঁচ তলা থেকে রিক্সা চালকের গায়ের ওপর পড়ে। স্থানীয়রা দ্রুত এগিয়ে এসে মুমুর্ষ অবস্থায় দুই জনকে ফেনী সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক নির্মান শ্রমিক নিতাই চন্দ্র সরকারকে মৃত ঘোষনা করেন। রিক্সা চালক মো. এমদাদুলকে ভর্তির পর প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতলে নেওয়ার পথে মারা যায়। নিমাই চন্দ্র সরকার (৫৫) কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর উপজেলার গোবিন্দপুর ও রিক্সা চালক এমদাদুলের বাড়ি রংপুরের নেপাসছরা গ্রামের বাসিন্দা। দুইজনের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ফেনী সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

ফেনী মডেল থানার ওসি মো. রাশেদ খান চৌধুরী দুই শ্রমিকের মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ফেনী সদর হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। এ ব্যপারে অপমৃত্যু মামলা রজু করা হবে।