স্টাফ রিপোর্টার : সোনাগাজীতে বিভিন্ন সড়কে ফিটনেস বিহীন গাড়ী, যানবাহনের নিবন্ধন, গাড়ী ও চালকের লাইসেন্স, হেলমেডসহ গাড়ীর কাগজপত্র যাচাই-বাচাইয়ের লক্ষে গতকাল বুধবার অভিযান চালায় পুলিশ। অভিযানে বিশটি মোটরযানকে আটক করে বিভিন্ অভিযোগে মামলা দেওয়া হয়েছে।  নিরাপদ সড়কের দাবিতে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের আন্দোলন ও পুলিশের ট্রাফিক সপ্তাহ শুরুর চতুর্থদিন ছিলো গতকাল।
পুলিশ সূত্র জানায়, ট্রাফিক সপ্তাহ পালনের লক্ষে জনগনের যানমালের রক্ষা স্বার্থে এবং সড়ক দূর্ঘটনা এড়ানোর লক্ষে বুধবার সকাল থেকে সোনাগাজী- ফেনী সড়ক, ওলামাবাজার সড়ক,কাজীর হাট সড়ক, মুহুরী প্রকল্প সড়কসহ উপজেলার বিভিন্ন সড়কে তল্লাশী চৌকি বসায় পুলিশ। এসময় অর্ধশত যানবাহনের কাগজ পত্র দেখা হয়। পরে বিভিন্ন অভিযোগে সাতটি মোটর সাইকেল, চারটি ব্যক্তিগত গাড়ী, দুটি ভারী মালবাহি যানবাহন, পাঁচটি অটোরিকশা, দুটি যাত্রীবাহি বাসকে আটক করে গাড়ীর কাগজপত্রসহ চালকের লাইসেন্স যাচাই-বাচাই করা হয়। অভিযানে কাগজপত্রে ত্রুটি থাকায় আটককৃত বিশটি গাড়ীকে বিভিন্ন অভিযোগে মামলা দেওয়া হয়েছে।
সোনাগাজী মডেল থানার ওসি মো. মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, অভিযানে বিভিন্ন ধরনের আটক করা ২০টি গাড়ীকে মামলা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। অভিযান চলাকালে কাগজপত্র সঠিক থাকার পরও সঙ্গে না রাখায় ছোট-বড় প্রায় ত্রিশটি যানবাহনের মালিক ও চালককে প্রাথমিকভাবে সর্তক করা হয়েছে।